ফ্রান্সে পাওয়া গেলো হিটলারের রোমাঞ্চকর বাংকার! আরও বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন নীচের লিঙ্কে

0
321

বনের মাঝে খুঁজে পাওয়া অদ্ভুত সব আবিষ্কারের মধ্যে হিটলারের বাংকার নিঃসন্দেহে সেরা তিনে থাকবে! মার্ক আস্কাট নামের এক অভিযানকারী ফ্রান্সের বনের মাঝে আবিষ্কার করলেন এমন একটি বাংকার।

বনের মাঝে ছবি তুলতে তুলতে তিনি এই বাংকার খুঁজে পান। ফ্রান্সের এই বাংকারকে ধারণা করা হয় যুদ্ধে ব্যবহৃত হিটলারের শেষ বাংকার হিসেবে! এখান থেকেই হিটলার বৃটেনে হামলার পরিকল্পনা করেন!

বাংকারটি এমন এক স্থানে আছে যেখানে ভেতর বাহির সবখান থেকেই ছমছমে মনে হয়। আস্কাট এই বাংকারের অনেক ছবি প্রকাশ করেছেন।

জীবনের ঝুকি নিয়ে আবিষ্কার!

শিকারের মৌসুমে ফ্রান্সের প্রান্তিক এলাকায় একা একা ঘুরে বেড়ানো সহজ কোন কাজ না। কিন্তু আস্কাট জীবনের ঝুকি নিয়ে এই এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন এবং তার এই ঝুকি নেয়া কাজে দিয়েছে। বনের মধ্যে তিনি একটা কংক্রিটের ভবন দেখতে পান এবং সামনে একটা সুইমিং পুল। অনেক পর্যবেক্ষণের পর তিনি বুঝতে পারলেন আকাশ থেকে কেউ দেখে যাতে বিভ্রান্ত হয় তাই ব্যবস্থা!

তিনি একটা দরজা খুঁজতে লাগলেন!

বাইরে থেকে ভবনটা কেন, কি কাজে ব্যবহার হতো বোঝা যাচ্ছিলো না। তাই আস্কাট ভেতরে যাওয়ার পথ খুঁজতে লাগলেন। তিনি খোলা যায় এমন একটা দরজা খুঁজে পেলেন যা দেখলে অভিশপ্ত মনে হয়।

ভেতরটা বিশাল

!

বাংকারের ভেতরটা বিশাল! আস্কাট ছয় মাইল লম্বা রুম এর সারি আবিষ্কার করলেন, সংযোগকারী সুড়ঙ্গ আবিষ্কার করলেন। সবচেয়ে গোপন জায়গাটি ১০০ ফুট মাটির নিচে! সেখানে যেতে অনেক পথ পাড়ি দিতে হয়।

জার্মানীতে হিটলারের শেষ বাংকার!

পরিকল্পনা অনুযায়ী হিটলারের এই বাংকারটি জার্মানীর বাইরে শেষ সদরদপ্তর ছিলো। এই সদরদপ্তর থেকেই হিটলার ইংল্যান্ড আক্রমণের পরিকল্পনা করেন।

জরাজীর্ণ ভেতর!

জরাজীর্ণ

রহস্যময় কক্ষ!

বাংকারের ভেতর খোজ পাওয়া যায় কিছু রহস্যময় কক্ষের।

ইতিহাসের সাক্ষী

এটা আস্কাটের প্রথম আবিষ্কার না!

আস্কাট এর আগেও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অনেক নতুন স্থান আবিষ্কার করেছেন। এর আগে তিনি একটা ছবি খুঁজে পান যেখানে যুদ্ধের সময়কার হাসপাতালের অবস্থা ধারণ করা হয়েছিল। এছাড়া যুদ্ধের সময়কার আরো অনেক কিছুই তিনি আবিষ্কার করেন। কিন্তু এই বাংকার তার খুঁজে পাওয়া সেরা আবিষ্কার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here